ধামরাই উপজেলা ও পৌর ছাত্রলীগের উদ্যোগে ১৫ই আগষ্ট জাতীয় শোক দিবস পালিত

বার্তাকক্ষবার্তাকক্ষ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৭:২০ PM, ৩০ অগাস্ট ২০২০

ঢাকা জেলা প্রতিনিধি – ঢাকার ধামরাই পৌর শহরের ঢুলিভিটা সিটি সেন্টার দ্বিতীয় তলায় রবিবার (৩০শে আগষ্ট-২০২০ খ্রীস্টাব্দ) বিকাল ৩ ঘটিকায় ধামরাই উপজেলা ছাত্রলীগ ও পৌর ছাত্রলীগ কর্তৃক আয়োজিত ১৫ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৫ তম শাহাদাত বার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠান ধামরাই উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক মোঃ আদনান হোসেন এর সভাপতিত্বে শোকাবহ ১৫ই আগষ্ট শীর্ষক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা-২০ ধামরাই আসনের মাননীয় জাতীয় সংসদ সদস্য,ঢাকা জেলা আওয়ামীলীগ ও বায়রা’র সভাপতি জননেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব বেনজীর আহমদ এমপি । এ’অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা উত্তর ছাত্রলীগের সভাপতি মোঃ সাইদুল ইসলাম প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা উত্তর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মনিরুল ইসলাম (মনির)

এ’সময় আরো উপস্থিত ছিলেন ধামরাই উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান ও ঢাকা জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোঃ সিরাজ উদ্দিন সিরাজ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সোহানা জেসমীন মুক্তা, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও সানোড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ খালেদ মাসুদ লাল্টু সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ ও ছাত্রলীগের জেলা, উপজেলা, পৌর ও ইউনিয়ন বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা সভায় বক্তারা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙ্গালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কর্মময় বর্ণিল রাজনৈতিক জীবন এর উপর বিস্তারিত আলোচনা করেন। বক্তারা বলেন খুনিরা ভেবেছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবকে মারলেই সব শেষ, এরা হয়তো জানতো না মুজিব মানেই বাংলাদেশ। উপজেলা ছাত্রলীগের যুগ্ন আহবায়ক মোঃ আদনান হোসেন বলেন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান নিজ হাতে ছাত্রলীগ গঠন করেছেন।

মুক্তিযুদ্ধ থেকে শুরু করে যে কোন লড়াই সংগ্রামে ছাত্রলীগ অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছে আগামীতে জাতির জনকের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার জন্য মানণীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ছাত্রলীগ পাশে থেকে যে কোন ত্যাগ স্বীকার করতে প্রস্তু আছে। প্রধান অতিথি আলহাজ্ব বেনজীর আহমদ বলেন শোককে শক্তিতে রুপান্তর করে জাতির জনকের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ার জন্য মানণীয় প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্য দেশরত্ন শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করে যেতে হবে।

সেই সাথে ১৫ই আগষ্ট ১৯৭৫ ও ২১শে আগষ্ট ২০০৪ সালের খুনিদের বিচার চেয়ে এবং যে সকল খুনিদের আদালত ফাঁসির রায় দিয়েছেন তাদের অবিলম্বে দেশে ফিরিয়ে এনে আদালতের রায় কার্যকর করার দাবি করেন। অনুষ্ঠানের সঞ্চালক ছিলেন ধামরাই পৌর ছাত্রলীগের আহবায়ক মোর্শেদুল ইসলাম মশু। আলোচনা সভা শেষে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয় এবং উপস্থিত সকল মানুষের মাঝে গণভোজের খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :