Agaminews
Dr. Neem Hakim

সবচেয়ে নিম্ন মানের জান্নাতের আকার এই পৃথিবীর চেয়েও বড়! কিভাবে সম্ভব?


বার্তাকক্ষ প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ১৯, ২০২০, ১২:২২ পূর্বাহ্ন /
সবচেয়ে নিম্ন মানের জান্নাতের আকার এই পৃথিবীর চেয়েও বড়! কিভাবে সম্ভব?

দেখি, বিজ্ঞান কি বলে মহাবিশ্ব বা বিশ্ব-ব্রহ্মাণ্ড। পর্যবেক্ষণ-লব্ধ মহাবিশ্বের ব্যাস প্রায় ২৮ বিলিয়ন পারসেক (৯১ বিলিয়ন আলোক বর্ষ) । পুরো মহাবিশ্বের আকার অজানা হলেও বিগ ব্যাং তত্ব অনুসারে এর আয়তন ক্রমবর্ধমান। সম্প্রতি আধুনিক পদার্থবিজ্ঞানীদের বিভিন্ন তত্ত্বে আমাদের এই দৃশ্যমান মহাবিশ্বের পাশাপাশি আরো অনেক মহাবিশ্ব থাকার অর্থাৎ অনন্ত মহাবিশ্ব থাকার সম্ভাবনার কথাও বলা হচ্ছে। বিজ্ঞান মনস্করা ভেবে দেখবেন দয়া করে।

* পারসেক ইংরেজি parsec হলো মহাজাগতিক দূরত্ব পরিমাপে ব্যবহৃত একটি একক। যেসব নক্ষত্রের লম্বন ১ সেকেন্ড তাদের দূরত্ব ১ পারসেক। ১ পারসেক = ৩.২৬ আলোকবর্ষ। রাতের আকাশে আমরা যে সকল নক্ষত্র দেখতে পাই তার বেশীরভাগই সূর্য থেকে ৫০০ পারসেক দূরত্বের মধ্যে অবস্থান করছে।

* আলোক বর্ষ ইংরেজি light-year হলো জ্যোতির্বিদ্যায় ব্যবহৃত দূরত্বের একক। আলো শুন্যস্থানে এক বৎসর সময়ে যে দূরত্ব অতিক্রম করে তাকে এক আলোক বর্ষ বলে। এক আলোক বর্ষ দূরত্বের পরিমাণ প্রায় ৯.৪৬১×১০১২ কিলোমিটার বা প্রায় ৫.৮৭৯×১০১২ মাইল। আলোক বর্ষ এককটি মূলত অনানুষ্ঠানিক আলোচনা এবং বিজ্ঞানভিত্তিক কল্পকাহিনীতে ব্যবহৃত হয়। পেশাগত জ্যোতির্বিজ্ঞানে গ্যালাকটিক দূরত্ব বুঝাতে পারসেক ব্যবহৃত হয়।।