Agaminews
Dr. Neem Hakim

আগামীকাল সকালেই যশোর জেলার ২ উপজেলায় নির্বাচন- সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন


বার্তাকক্ষ প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৯, ২০২০, ১০:২২ অপরাহ্ন /
আগামীকাল সকালেই যশোর জেলার ২ উপজেলায় নির্বাচন- সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন

স্বীকৃতি বিশ্বাস। যশোর।

নির্বাচন মানে চায়ের দোকানে স্ব স্ব সমার্থক নিয়ে আলোচনা, পর্যালোচনা ও সমালোচনা। গরম চায়ের ঝাঁঝ পৌছে যায় বিভিন্ন এলাকায় প্রার্থীদের জনপ্রিয়তা নিয়ে। যদিও গত ২ দিন যাবত শীত তার চিরচেনা রুপে ফিরে এসেছে কিন্তু নির্বাচনের তপ্ত আলোচনায় শীতের শীতলতাকে ম্লান করে দিয়েছে যশোর সদর উপজেলার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও বাঘার পাড়ার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচন।

আগামীকাল ১০.১২.২০২০ রোজ বৃহস্পতিবার সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে চলবে ভোট গ্রহন। করোনাকালীন সময়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়ানোর জন্য ৪ স্তর বিশিষ্ট আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়ে নির্বাচনের আয়োজন করা হয়েছে। করোনার সংক্রমণ এড়াতে ও ভোটারদের স্বাস্থ্য সুরক্ষিত রাখতে প্রতিটি কেন্দ্রের প্রবেশ পথে হাত ধোয়ার জন্য সাবান-পানির ব্যবস্থা থাকছে। এছাড়া ভোটগ্রহণকারী কর্মকর্তাদের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার রাখা হয়েছে। পাশাপাশি ভোটার ও ভোট গ্রহণের দায়িত্বে নিয়োজিতদের বাধ্যতামূলকভাবে মাস্কও সরবরাহ করা হবে।
নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী ৮ ডিসেম্বর মঙ্গলবার মধ্য রাত থেকে প্রচার-প্রচারণা শেষ হয়েছে।

জেলা ডিএসবির পরিদর্শক (ডিআইওয়ান) মসিউর রহমান জানিয়েছেন, দুউপজেলায় ১২৯ ভোট কেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ বলে চিহ্নিত করা হয়েছে।

সদর উপজেলা পরিষদের সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে অ্যাডভোকেট সেতারা খাতুন হাঁস প্রতীক ও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জ্যোৎস্না আরা মিলি কলস প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

বাঘারপাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে প্রয়াত চেয়ারম্যান নাজমুল ইসলাম কাজলের সহধর্মিনী ও আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী ভিক্টোরিয়া পারভিন সাথী নৌকা প্রতীক ও বিএনপি মনোনীত প্রার্থী শামসুর রহমান ধানের শীষ এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী দীন মোহাম্মদ দিলু পাটোয়ারী আনারস প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা হুমায়ন কবির জানান, নির্বাচন নিয়ে নির্বাচন অফিস ও প্রশাসন ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে। নির্বাচনের দিন সকালে নির্বাচনী কেন্দ্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রিজাইডিং কর্মকর্তাদের জেলা নির্বাচন অফিস থেকে প্রত্যেকটি কেন্দ্রের জন্য স্বচ্ছ ব্যালট বক্স, ব্যালট পেপার, হ্যান্ড গ্লাভস, হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়া হবে।
এছাড়া দুটি উপজেলায় সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে নির্বাচনের জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিপুল সংখ্যক সদস্য নিয়োজিত থাকছে। সেই সাথে জুডিসিয়াল, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন।

যশোর জেলার দুই উপজেলায় নির্বাচনে অংশ নেওয়া ৫ প্রার্থীই সুষ্ঠুভাবে ভোটগ্রহণের আশাবাদী। সেইসাথে সব প্রার্থীই বিজয়ী হওয়ার আশাব্যক্ত করেছেন।