Agaminews
Dr. Neem Hakim

শীতের সকালে জমজমাট কাঁচা সবজির বাজার


বার্তাকক্ষ প্রকাশের সময় : ডিসেম্বর ৭, ২০২০, ১২:১০ অপরাহ্ন /
শীতের সকালে জমজমাট কাঁচা সবজির বাজার

ইমন ইসলাম, নিজস্ব প্রতিনিধি

ঋতু বৈচিত্র্যের দেশ বাংলাদেশ। বাংলাদেশের ছয়টি ঋতুর মধ্যে শীত ঋতু অন্যতম।পৌষ-মাঘ এই দু-মাসকে বলা হয়ে থাকে শীতকাল।ভোরের শিশির ভেজা সকাল। সঙ্গে মৃদুমন্দ হিমেল হাওয়া। শীতের আগমনী বার্তাকে পৌঁছে দিচ্ছে সবার কাছে। সেই বার্তা প্রবল করেছে হরেক রকম শীতকালীন শাক-সবজি।

শীতের দিনে শীতকালীন সবজির বেশ কদর। শীতকালীন সবজি উৎপাদনের জন্য উওরবঙ্গ অন্যতম। ফুলকপি,পাতাকপি, বাঁধাকপি,শিম,গাজর, টমেটো,মূলো, লালশাক, পুঁইশাক, পালংশাক, বেগুন,সরিষা, লেটুস হলো শীতকালীন সবজির মধ্যে অন্যতম।বিশেষ করে- ফুল কপি, বাঁধা কপি, পিয়াজ কলি, পাকা টমেটো, সবুজ ও লাল শালগম, সবুজ ও লাল শিম, লাউয়ের চাহিদা একটু বেশি।

প্রতিবছরের মতো এবছরেও হীমের চাদর জড়িয়ে ঠকঠক ঠক কাঁপতে কাঁপতে উওরের পথ ধরে এসেছে মাঘের সন্ন্যাসী।শীত বাড়ার সাথে সাথে শীতকালীন সবজির চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে। শীতের সকালে সবচেয়ে বেশি ব্যস্ত দেখা যায় শীতকালীন সবজি চাষীদের। প্রচন্ড শীতের মধ্যেও তারা মাঠ থেকে সবজি সংগ্রহ করে ছুটে চলে শীতকালীন সবজি বাজারের পথে। শীতের সকালে টাটকা সবজির বেশ কদর। শীতকালীন সবজি শুধুমাত্র গ্রামের বাজারের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে না।সবজি ব্যবসায়ীরা চাষীদের কাছ থেকে সবজি ক্রয় করে চলে যান শহরের পথে। রাজধানীর শহরগুলোতে শীতকালীন সবজির বেশ চাহিদা রয়েছে।
বাংলাদেশের উওর অঞ্চলের জেলাগুলোতে শীতকালীন সবজির উৎপাদন হয়ে থাকে বেশি। বিশেষ করে সিরাজগঞ্জ, বগুড়া, নীলফামারী, রংপুর, কুড়িগ্রামের মতো এলাকা গুলোতে শীতের আমেজটা একটু বেশি হওয়ায় এ অঞ্চল গুলোতে শীতের সবজি চাষের জন্য উপযোগী। শীতের সকালে যেন মেলা বসে সবজির বাজার গুলোতে। দূরদূরান্ত থেকে চাষিরা আসে তাদের উৎপাদিত সবজি নিয়ে। শীতের সকালে শীতকালীন টাটকা সবজি ছাড়া যেন মানুষের ভাত যেন হজম হতেই চায়না। শীতকাল একদিকে যেমন মানুষের খাদ্য চাহিদা পূরণ করে ঠিক তেমনি দরিদ্র ভূমিহীন প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর কর্মসংস্থান সৃষ্টির ক্ষেত্রেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।