Agaminews
Dr. Neem Hakim

নাটোরের লালপুরে পাইকপাড়া ব্রীজটি বর্তমানে মরণ ফাঁদ


আবদুল্লাহ আল হাদী প্রকাশের সময় : নভেম্বর ২, ২০২০, ১১:২৭ অপরাহ্ন /
নাটোরের লালপুরে পাইকপাড়া ব্রীজটি বর্তমানে মরণ ফাঁদ

স্টাফ রিপোর্টার ঃ   নাটোর জেলার লালপুর উপজেলার পাইকপাড়া- রঘুনাথপুর সড়কের পাইকপাড়া সেন্টার এলাকায় একটি ব্রিজ খুবই ঝুঁকিপূর্ন অবস্থায় রয়েছে। যে কোন সময় ঘটতে পারে একটি বড় ধরনের দূর্ঘটনা। সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন হাজারো মানুষ যাতায়াত করলেও এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের কোনো নজর নেই বলে জানান স্থানীয়রা।

স্থানীয়রা আরও জানান, পাইকপাড়া, রঘুনাথপুর সহ আশেপাশের কয়েকটি এলাকার জনগনের উপজেলা সদর, হাসপাতাল, বাজার, প্বার্শবর্তী উপজেলা বাঘা যাওয়ার অন্যতম প্রধান রাস্তা ধরে যাতায়াত করে মানুষ। যা কয়েক মাস যাবৎ ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। ফলে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করছে এপথে চলাচলকারী সাধারণ জনগণ ।

এবিষয়ে জানতে গেলে দেখা যায়, ব্রিজটির বড় একটি অংশে ইট বালির কংক্রিটের ভেঙে রড বাহির হয়ে গেছে যার ফলে যেকোনো সময় যেকোনো ধরনের গাড়ি অলক্ষ্যে এসে চলে আসলে ঘটতে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা। আর সন্ধ্যার পরে রাত নেমে আসলে যেন ব্রীজটি একটি মরণ ফাঁদ।

এসময় এপথে চলাচলকারী অলি আহমদ জানান, আমাদের ব্রিজটি দীর্ঘদিন যাবৎ এই বেহাল দশায় পড়ে আছে। ব্রীজটি দিয়ে যারা নিয়মিত চলাচল করে তারা ব্রীজটি সাবধানে পার হয়। আর সন্ধ্যার অন্ধকারে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলতে হয় এই রাস্তায়। এছাড়া যারা হঠাৎ করে অনেকদিন পরে রাস্তায় চলাচল করবে তারা দূর্ঘটনায় পড়া সময়ের ব্যাপার মাত্র বলে জানান তারা।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মুল বানীন বলেন, শিগগিরই ব্রিজটি সংস্কারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা প্রকৌশলীর সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করা হবে।

এছাড়া দুড়দুড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান বলেন, বিষয়টি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ইউএনওকে জানানো হয়েছে। তারা ব্যবস্থা নিবে বলে আমাকে জানিয়েছেন, বিষয়টি এখনো প্রক্রিয়াধীন । আপতত টিন সিড দিয়ে সাময়িক মেরামত করা হবে ঝুঁকিপূর্ণ ব্রীজটি। পরবর্তীতে বরাদ্দ পেলে ব্রীজটি স্থায়ী ভাবে সংস্কার করা হবে।