Agaminews
Dr. Neem Hakim

লালমোহনে ১৮ মন্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা শুরু


আবদুল্লাহ আল হাদী প্রকাশের সময় : অক্টোবর ২৩, ২০২০, ৩:১৯ অপরাহ্ন /
লালমোহনে ১৮ মন্ডপে শারদীয় দুর্গাপূজা শুরু

মো আহসান হাবীব,লালমোহন (ভোলা) প্রতিনিধি  :   ঢাকের বাদ্য, শঙ্খ ধ্বনি ছড়িয়ে দিতে শান্তির বানী বছর শেষে আবার এলো মা দূর্গার আগমণী। প্রতি বছরের ন্যায় এবারো সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় উৎসব শ্রী শ্রী শারদীয় দুর্গাপূজা আজ শুরু হয়েছে । লালমোহনে ১৮ মন্ডপে ষষ্ঠীপূজার মধ্য দিয়ে দূর্গা পূজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।

তবে বিশ্বব্যাপী মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে বিগত বছরের ন্যায় শোভাযাত্রা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, মেলা,আরতি প্রতিযোগিতা, মন্দিরে মন্দিরে দূর্গা প্রতিমা দর্শন বা উৎসব মূখর পরিবেশে এ বছর শারদীয় দুর্গোৎসব পালন করার সুযোগ পাবেন না সনাতন ধর্মাবলম্বীরা । শুধুমাত্র ধর্মীয় রীতি নীতি অনুসরণ করে পূজা- অর্চনার মাধ্যমে মন্দির প্রাঙ্গণেই সীমাবদ্ধ থাকবে এবারের শারদীয় দূর্গা পূজার আনন্দ। সনাতন ধর্ম মতে সাধারণত মহালয়ার ৬ দিন পরই হয় দেবী দূর্গার বোধন অর্থাৎ মহালয়ার পর থেকে দেবীর আগমনের ঘন্টা বাজে। । মহালয়া হয়ে থাকে শরৎকালে। কিন্তু এক মাসে দুটি অমাবস্যা পড়লে সেই মাসকে শাস্ত্রমতে”” মল”” মাস বলা হয় । এই মাসে কোন ও শুভ কাজ করার রীতি নেই তাই এবার দেবী এলেন হেমন্তে । শরতে মহালয়া শুরু হওয়ার ৩৫ দিন পর হেমন্তের কার্তিক মাসে ষষ্ঠী তিথীতে দেবীর আগমনের মধ্যদিয়ে শুরু হবে শারদীয় দুর্গাপূজা। এ বছর দেবীর দোলায় আগমন করবেন এবং গজে ( হাতি) গমন করবেন।

ইংরেজি ক্যালেন্ডার অনুযায়ী ২২ অক্টোবর ষষ্ঠী বিহিত পূজা দেবীর আমন্ত্রণ ও অধিবাসের মধ্যে দিয়ে দূর্গা পূজার মূল আনুষ্ঠানিকতা শুরু। ২৩ অক্টোবর শ্রী শ্রী শারদীয় দূর্গা দেবীর নবপত্রিকা প্রবেশ স্থাপন ও সপ্তমি বিহিত পূজা, ২৪ অক্টোবর মহাষ্টমী সন্দ্ধিপূজা সমাপন পুষ্পান্জলী ও মায়ের ভোগরাগ প্রসাদ বিতরণ, ২৫ অক্টোবর মহানবমী পূজান্তে যজ্ঞানুষ্ঠান ও পুষ্পান্জলী এবং ২৬ অক্টোবর দশমী বিহিত পূজা সমাপন দর্পণ বিসর্জন ও প্রসাদ বিতরণের মধ্য দিয়ে শারদীয় দূর্গা পূজার সমাপ্তি ঘটবে।

লালমোহন উপজেলায় এ বছর ১৮ টি মন্দিরে শারদীয় দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হয়। লালমোহন পৌরসভার শ্রী শ্রী মদনমোহন জিউ মন্দির দূর্গা পূজা মন্দির ও মহামায়া দূর্গা পূজা মন্ডপ, পশ্চিম চর উমেদ ইউনিয়নের শ্রী শ্রী কৃষ্ণ কালী মন্দির দূর্গা পূজা মন্ডপ গজারিয়া বাজার ও কলেজ পাড়া দূর্গা পূজা মন্ডপ, রমাগঞ্জ ইউনিয়নের চন্দ্রকুমার ঠাকুর বাড়ি দূর্গা পূজা মন্ডপ রায়চাদ বাজার ও কর্তারহাট কালি মন্দির দূর্গা পূজা মন্ডপ,কালিমা ইউনিয়নের রাধাগোবিন্দ মন্দির দূর্গা পূজা মন্ডপ পশ্চিম চরলক্ষ্মী ডাওরি বাজার, রাধাগোবিন্দ মন্দির দূর্গা পূজা মন্ডপ পূর্ব চরলক্ষ্মী ডাওরি বাজার ,মধ্যচরলক্ষ্মী রাধাগোবিন্দ জিউ মন্দির দূর্গা পূজা মন্ডপ ও উত্তর কালিমা বালা বাড়ি শ্রী শ্রী রাধাগোবিন্দ মন্দির দূর্গা পূজা মন্ডপ,চরভূতা ইউনিয়নের নন্দরানী আশ্রম দূর্গা পূজা মন্ডপ নমগ্রাম চরভূতা,ধলিগৌরনগর ইউনিয়নের হরিঠাকুর মন্দির দূর্গা পূজা মন্ডপ মঙ্গলসিকদার বজার ও শ্রী শ্রী রাধাগোবিন্দ জিউ মন্দির দূর্গা পূজা মন্ডপ বৃন্দাবন হাওলাদার বড়ি বাউরিয়া, লর্ড হার্ডিঞ্জ ইউনিয়নের নরেনপালের বাড়ি দূর্গা পূজা মন্ডপ প্যায়ারিমোহন,গঙ্গারাম দাস বাড়ি দূর্গা পূজা মন্ডপ, স্বর্গীয় পদ্মলোচন মাঝি বাড়ি দূর্গা পূজা মন্ডপ , গুনমনি দাস বাড়ি দূর্গা পূজা মন্ডপ অন্নদাপ্রসাদ ও রিক্তা মেম্বার বাড়ি দূর্গা পূজা মন্ডপ অন্নদাপ্রসাদ।

লালমোহন কেন্দ্রীয় শ্রী শ্রী মদনমোহন জিউ মন্দিরের সাধারণ সম্পাদক বাবু যুগল কৃষ্ণ কুন্ডু জানান এ বছর মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের নির্দেশনা অনুযায়ী সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে বাধ্যতামূলক মাস্ক এবং সাবান দিয়ে হাত পরিস্কার করে মন্দিরে প্রবেশ করতে পারবে এবং ১০ জনের বেশি দর্শনার্থী মন্দিরে অবস্থান করতে পারবে না । মন্দিরের প্রবেশ পথে মন্দির কমিটির পক্ষ থেকে মাস্ক সহ হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।