Agaminews
Dr. Neem Hakim

ইমরান সরকার বিরোধী আন্দোলনে গ্রেপ্তার মরিয়ম নওয়াজের স্বামী


আবদুল্লাহ আল হাদী প্রকাশের সময় : অক্টোবর ১৯, ২০২০, ১০:১০ অপরাহ্ন /
ইমরান সরকার বিরোধী আন্দোলনে গ্রেপ্তার মরিয়ম নওয়াজের স্বামী

আন্তর্জাতিক প্রতিবেদক :    পাকিস্তানের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের বিরুদ্ধে দেশব্যাপী জনমত গড়ে তুলতে পাকিস্তানের ৯টি বিরোধী দল নিয়ে একটি জোট গঠন করেছেন সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ। জোটের নাম দেয়া হয়েছে পাকিস্তান ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট (পিডিএম)।
বিক্ষোভের অংশ হিসেবে গত রবিবার(১৮ অক্টোবর) করাচীতে বিশাল সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে “অযোগ্য নেতা’’ হিসেবে অভিহিত করে পাকিস্তানের বিরোধী জোট এবং তার পর পরই গ্রেপ্তার করা হয় মরিয়ম নওয়াজের স্বামী ক্যাপ্টেন সাফদারকে।

মরিয়ম নওয়াজ এক বিবৃতিতে বলেন, প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে ক্ষমতাচ্যুত করার জন্য পাকিস্তান গণতান্ত্রিক আন্দোলনের সমর্থনে যে জনসমাবেশ করা হয় তার কয়েক ঘণ্টা পরে পুলিশ তাদের হোটেলের ঘরের দরজা ভেঙে তার স্বামীকে গ্রেপ্তার করে।
এছাড়াও মরিয়াম নওয়াজ টুইটে জানিয়েছেন, “আমি করাচিতে যে হোটেলে ছিলাম সেখান থেকে পুলিশ তার ঘরের দরজা ভেঙে ক্যাপ্টেন সাফদারকে গ্রেপ্তার করে”।

মরিয়ম নওয়াজ ইমরান খানকে ‘বিশ্বাসঘাতক’ উপাধি দিয়ে বলেন, “ইমরান খানের কাছে ২০১৮ সালের নির্বাচনের কারচুপি নিয়ে সঠিক জবাব চাইলে সে তার সসস্ত্র বাহিনীর পিছনে লুকিয়ে থাকবে ,এছাড়া তার আর কিছুই করার নাই”।

বার্তা সংস্থা পিটিআইয়ের বরাতে জানা যায় পাকিস্তান পিপলস পার্টির (পিপিপি) প্রধান বিলওয়াল ভুট্টো জারদারি বলেন “এই অক্ষম ও অবাস্তব প্রধানমন্ত্রীকে তার পদ ছেড়ে যেতে হবেই”
তিনি আরো বলেন, ইতিহাস স্বাক্ষী আছে অনেক বড় বড় স্বৈরশাসকরা বেশি দিন বাঁচতে পারে নি,“এই অক্ষম প্রধানমন্ত্রীর কি হয় তা দেখার অপেক্ষা মাত্র”। ১৩ বছর আগে ২০০৭ সালে যখন প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী বেনজির ভুট্টোকে হত্যা করা হয় সেদিনও রাজপথে এমন বিক্ষোভ হয়েছিল।