কক্সবাজার সুগন্ধা পয়েন্টে রায় অনুযায়ী অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে ব্যবসায়ী ও পুলিশের মুখোমুখি সংঘর্ষ!

আবদুল্লাহ আল হাদীআবদুল্লাহ আল হাদী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:১৭ PM, ১৭ অক্টোবর ২০২০

ওবায়েদ, নিজস্ব প্রতিবেদন :    উচ্চ আদালতের নির্দেশনা অনুসারে কক্সবাজারের কলাতলীর সুগন্ধা পয়েন্টে ৫২টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে গিয়ে প্রবল বাঁধার মুখে পড়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

এসময় পুলিশ ও অবৈধ দখলদারদের মধ্যে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, ইটপাটকেল, টিয়ারশেল ও রাবার বুলেট নিক্ষেপের ঘটনা ঘটেছে।

আজ শনিবার দুপুরে দ্বিতীয় দফায় এসব স্থাপনা উচ্ছেদে যায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসন ও কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ।

এসময় অবৈধ দখলদার, স্থানীয় ব্যবসায়ী ও বহিরাগত কিছু লোকজন একজোট হয়ে স্থাপনাগুলো সামনে অবস্থান নেয় এবং বিক্ষোভ প্রদর্শন করে। প্রশাসনের তরফ থেকে হ্যান্ডমাইকে বারবার সতর্ক ও দোকানের মালামাল সরিয়ে ফেলার কথা বলা হলেও অবৈধ দখলদাররা তা শুনেনি। একপর্যায়ে বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে প্রশাসন উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু করলে উভয়ের পক্ষে সংঘর্ষ হয়। পুলিশের উপর উপর্যুপুরি ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়।

এসময় পুলিশও পাল্টা টিয়ারশেল এবং রাবার বুলেট নিক্ষেপ করে।
এসময় কউকের সচিব আবু জাফর রাশেদ, সদর মডেল থানার ওসি শেখ মুনির উল গিয়াস এবং যমুনা টিভির সাংবাদিক রাসেলসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়।তাদেরকে ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।
স্থানীয় ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে দাবী করা হয়েছে, এই সংঘর্ষে তাদের অন্তত ১৪ জন আহত হয়েছেন।
তাদের স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।
অন্যান্যদের পরিচয় এখনো পাওয়া যায়নি।

অভিযানে ছিলেন-কক্সবাজার উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের সচিব আবু জাফর রাশেদ, কক্সবাজার সদর সহকারি কমিশনার মুহাম্মদ শাহরিয়ার মোক্তার, কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি শেখ মুনির উল গিয়াসের নেতৃত্বাধীন টিম। তবে, অভিযানে গিয়ে ব্যবসায়ীদের প্রতিবন্ধকতার সম্মুখীন হয় প্রশাসনের যৌথ টিম।

উচ্ছেদ অভিযান অব্যাহত থাকবে বলে জানান প্রশাসনের যৌথ টিম।

আপনার মতামত লিখুন :