জয়পুরহাটের আক্কেলপুরে যুব মহিলা লীগের নেত্রীকে শ্লীলতাহানীসহ হত্যার হুমকি

আবদুল্লাহ আল হাদীআবদুল্লাহ আল হাদী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:৫০ PM, ০৪ অক্টোবর ২০২০

মোঃ গোলাম কিবরিয়া,জয়পুরহাট জেলা প্রতিনিধি :   জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলা যুব মহিলা লীগের নেত্রীকে শাহিদা আক্তারকে গত শুক্রবার হত্যাসহ শ্লীলতাহানীর হুমকি দেওয়া হয়েছে। এঘটনায় থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি নং- ৬৫, তারিখ- ০২ অক্টোবর) করা হয়েছে। শাহীদা আক্তারের দলীয় পরিচয়ের বিষয়টি উপজেলা যুব মহীলা লীগের সভাপতি সম্পা চৌধুরী নিশ্চিত করেছেন।

শাহিদা আক্তার পৌরসদরের কলেজ বাজারে গুরের ব্যবসা করেন। তিনি গত শুক্রবার তার বাড়ি থেকে বের হয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যাওয়ার সময় পথরোধ করে ওই হুমকি দেওয়া হয় বলে জিডিতে উল্লেখ করা হয়।

জিডি ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পূর্বের শুক্রতার জের ধরে শুক্রবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে পৌরসদরের চেয়ারম্যানপাড়া মহল্লার বাসিন্দা শাহিদা আকতার নিচা বাজার মোড় দিয়ে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে যাচ্ছিলেন। ওই সময় একই মহল্লার নিরেন চন্দ্র দাস (৩২), ধীরেন চন্দ্র দাস (২৫), বিরেন চন্দ্র দাস (৫৫) এবং নরেশ চন্দ্র দাস (৩৪) শাহিদা আকতারের পথরোধ করে অশ্লীন ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে। এক পর্যায়ে তাকে শ্লীলতাহানীসহ হত্যার হুমকি দেওয়া হয় বলে জিডিটে উল্লেখ করা হয়।

শাহিদা আকতার বলেন, আমি রাজনীতির পাশা পাশি কলেজ বাজারে একটি দোকানে গুরের ব্যবসা করি। আমাদের সাথে পূর্বে থেকে একই এলাকার বিরেন চন্দ্র দাসের পরিবারের সঙ্গে বিরোধ চলে আসছিল। তারিই ধারাবাহিকতায় গত শুক্রবার সকালে বাজারে আসার সময় তারা পূর্বে থেকে অবস্থান নিয়ে পথ রোধ করে আমাকে শ্লীলতাহানীসহ হত্যার হুমকি দেয়। আমি আমার জীবনের নিরাপত্তা চেয়ে ভবিষ্যতের জন্য থানায় সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেছি।

এবিষয়ে জানতে চাইলে বিরেন চন্দ্র দাস বলে তার পরিবারের বিরুদ্ধে অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তাদের সাথে আমাদের কোন বিরোধ বা শুক্রুতা নেই। তারা আমার ছেলেকে মারপিট করে উল্টো থানায় আমাদের নামে মিথ্যা জিডি করেছে।

থানায় জিডির বিষয়টি নিশ্চিত করে আক্কেলপুর থানার পরিদর্শক (ওসি) আব্দুল লতিফ খান বলেন, শাহিদা আক্তারকে গালিগালাজ ও হুমকি ধুমকি দেওয়ার বিষয়ে তিনি থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী (জিডি) করেছেন, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

আপনার মতামত লিখুন :