মধুপুরে একাদ্বশ শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে বিচারের দাবিতে মানববন্ধন

আবদুল্লাহ আল হাদীআবদুল্লাহ আল হাদী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০১:৪৭ PM, ০৪ অক্টোবর ২০২০

মো: আ: হামিদ,মধুপুর টাঙ্গাইল প্রতিনিধিঃ টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলায় এক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষনের অভিযোগে বিচারের দাবিতে শনিবার(৩ অক্টোবর) বিকেল ৫ টায় উপজেলার ধরাটি বাজারে মানববন্ধন করেছে শত শত এলাকাবাসী।

উক্ত মানববন্ধনে নেতৃবৃন্দ জানান উপজেলার ধরাটি অাঙ্গারিয়া গ্রামের হীরন মিয়ার কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে পার্শবর্তী ধনবাড়ী উপজেলার ধরাটি এলাকার নিকটবর্তী বন্দ হাওড়া গ্রামের অাঃ রাজ্জাকের ছেলে নাইম ইসলাম একাদ্বশ শ্রেণীর ছাত্র। গত ১অক্টোবর দুপুরের দিকে রাস্তা হতে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে পাশের কলাবাগানে ধর্ষন করে। এলাকার লোকজন তা দেখে ফেলে হাতেনাতে ধর্ষক নাইমকে হাতেনাতে ধরে ফেলে।

পরে এলাকার মাতাব্বরগন উভয় পক্ষের মধ্যে অাপোষের মাধ্যমে বিবাহের উদ্যোগ নেন। কিন্তু ছেলে পক্ষ বিষয়টি ধামা চাপা দেয়ার জন্য কালক্ষেপন করে। ছেলে পক্ষ বাল্যবিবাহ বলে চালিয়ে দেয়ার জন্য মধুপুর থানা পুলিশের মাধ্যমে ধর্ষক নাইমকে মধুপুর থানায় নিয় যায়। পরবর্তীতে ধর্ষক নাইমকে ছেড়ে দেয় বলে মানববন্ধনে ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক, ধর্ষিতার পরিবার ও এলাকার নেতৃবৃন্দ জানান। তাঁরা ধর্ষনের উপযুক্ত বিচার দাবিতে বক্তব্য রাখেন। ধর্ষকের ফাঁসির দাবির শ্লোগান সম্বলিত ফেস্টুন নিয়ে এলাকার শিক্ষার্থি ও শত শত পুরুষ মহিলার অংশগ্রহনে মানববন্ধনে সংরক্ষিত মহিলা অাসনের ইউপি সদস্য অর্চনা নকরেক, প্রবীন ইউপি সদস্য অাবুল হোসেন, কুঁড়াগাছা ইউনিয়ন ওয়ার্ড অা’লীগের সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান ও ইউনিয়ন অাওয়ামী লীগের আহব্বায়ক মিজানুর রহমান প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এসময় বক্তাগন ধর্ষক নাইমকে দ্রুত গ্রেফতার ও দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তি দাবী করেন। ধর্ষিতার পরিবার ও এলাকাবাসী জানান সম্ভ্রম হারিয়ে মেয়েটি এখন অাত্বহত্যার চেষ্টা করছে। বক্তারা আরও জানান বিবাহের উদ্যোগের কারনে এখনো কোন মামলা হয়নি।

আপনার মতামত লিখুন :