ধামরাইয়ে এক বিধবা নারী ধর্ষন ও অন্থঃসত্বা

আবদুল্লাহ আল হাদীআবদুল্লাহ আল হাদী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৮:৫৪ PM, ০৩ অক্টোবর ২০২০

স্টাফ রিপোর্টারঃ  ঢাকার ধামরাই উপজেলায় আর বি সি নামক এক ইটভাটায় জোর করে বিধবা নারীকে ধর্ষণ করায় ৭মাসর

অন্তসত্তা হয় গেছে নারী। এই ঘটনায় ধামরাই থানায় একটি মামলা হলে পুলিশ অভিযান চালিয় আজ শনিবার বিকালে মানিকগঞ্জ জেলার সাটুরিয়া থানা এলাকা থেকে ধর্ষক জিন্নত আলীকে(৪৫)আটক করছে। ধর্ষকের বাড়ী ধামরাই থানার কুশুরা ইউনিয়নের শাসন গ্রামের মোঃ নানু মিয়ার ছেলে ধর্ষক জিনত আলী। তার বিরুদ্ধ থানায় হত্যা ও ডাকাতিসহ একাধিক মামলা রয়েছে।

এলাকাবাসী ধর্ষক জিন্নত আলীর বিচার দাবি করে। সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়,উপজলার বালিয়া ইউনিয়নের কামারপাড়া গ্রামের নাছির উদ্দিনের সাথে দশ বছর পূর্ব বিয়ে হয় বড় নারায়নপুর গ্রামের মমতাজ বেগমের সাথে। তাদের ঘরে তিনটি কন্যা সন্তান হয়। গত দুই বছর পূর্ব মমতাজের স্বামী নাছির খুন হয়। স্বামী খুন হওয়ার পর থেকে তিনটি সন্তান নিয়ে বিপাকে পড়ে মমতাজ। তাদের সংসারে চরম আকারে অভাব দখা দেয়। এত উপায়ন্তর না দেখে কাজ নেয় মোঃ আলমগীর হোসেনের আর বি সি ইটভাটায়।ওই ইটভাটায় মাঝে মধ্যে যাতায়ত করতো জিন্নত আলী।

একদিন দুপুর বেলা মমতাজকে একা পেয়ে ঘরের ভিতর জোরপূর্বক ধর্ষণ করে জিন্নত আলী। এসময় মমতাজ চিৎকার করলে জিন্নত আলী তাকে চাকু দিয়ে ভয় দেখায় আর বলে এ ঘটনা কাউকে বলে তাকে খুন করার হুমকি দেয়। । ধর্ষিতা সন্তানের কথা চিন্তা করে ধর্ষণের ঘটনা চেপে যায় মমতাজ। ছয়মাস পর তার শরীরের অবস্থার পরিবর্তন দেখা দিলে তিনি চিকিৎসকের কাছে যান। চিকিৎসক তাকে পরিক্ষা দেয় ।রির্পোট আসার পরে তিনিজানতে পারে তিনি মা হতে চলেছে বলে ।

ধর্ষিতা মমতাজ বেগম লাবু বলন,আর বি সি ইটভাটায় তাকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে জিন্নত আলী। এঘটনা বলে দিলে আমাকে মেরে ফেলবে এমন হুমকি দিত জিন্নত। তাই আমি কাউকে কিছু জানায়নি এবং থানায় মামলা করনি।বর্তমান জিন্নত ও তার বাবা নানু মিয়া হুমকি দিচ্ছে ।তারা আমাকে সন্তান নষ্ট করতে বলেছে। মমতাজ বেগমকে বলে তার উপর যে অন্যায় হয়েছে তার বিচার ও তার গর্ভের সন্তানের পরিচয় চান। আমতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল হোসেন জানান,আর বি সি ইটভাটায় ধর্ষণ হয়ছে সেটা আমি জানি না।

এই বিষয় কাওয়ালীপাড়া পুলিশ তদন্তকেন্দ্রের (এস আই) মোঃ আবু সাঈদ বলন, বিধবা নারী ধর্ষণের শিকার হয়ছ এই ঘটনায় থানায় একটি ধর্ষণ মামলা হয়েছে। আজ দুপুরের পরে গোপন সংবাদের বিত্তিত্বে জানতে পারি ধর্ষক জিন্নত আলী মানিকগঞ্জ জলার সাটুরিয়ায় আছে।

আপনার মতামত লিখুন :