খুলনায় শিক্ষা কর্মকর্তার কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদার দাবি,গ্রেপ্তার ১

আবদুল্লাহ আল হাদীআবদুল্লাহ আল হাদী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৯:৪৩ PM, ০২ অক্টোবর ২০২০

শেখ নাসির উদ্দিন, খুলনা প্রতিনিধিঃ  প্রাথমিক শিক্ষা অধিপ্তরের খুলনা বিভাগীয় উপ-পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) নাজরীন সুলতানার কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে মানবাধিকার কর্মী এ্যাড. শেখ অলিউল ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। তাকে খালিশপুর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। আগামীকাল শনিবার (০৩ অক্টোবর) আদালতে তার রিমান্ড আবেদন করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন ওসি।

খালিশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী মোস্তাক আহমেদ জানিয়েছেন, প্রাথমিক শিক্ষা অধিপ্তরের খুলনা বিভাগীয় উপ-পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) নাজরীন সুলতানা বাদী হয়ে মানবাধিকার কর্মী এ্যাড. শেখ অলিউল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন (যার নং-০৩, ০১-১০-২০২০ইং)। এজাহারে বাদী অভিযোগ করেছেন, দুদক কর্মকর্তা পরিচয়ে তার কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে প্রতারক শেখ অলিউল ইসলাম। সে নিজেকে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের খুলনা বিভাগীয় সভাপতির পরিচয় দিয়ে পূর্বেও বহু মানুষের কাছ থেকে চাঁদা দাবি করেছে বলে অভিযোগ রয়েছে।

প্রাথমিক শিক্ষা অধিপ্তরের বিভাগীয় উপ-পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) নাজরীন সুলতানা বলেন, ‘বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের একটা প্যাডে এ্যাড. শেখ অলিউল ইসলাম আমাদের কয়েকজন কর্মকর্তাকে তার অফিসে গিয়ে কয়েকটি অভিযোগের জবাব দেবার জন্য চিঠি দেয়।

সরকারি কর্মকর্তাদের তো তিনি এভাবে ডাকতে পারেন না। বিষয়টি দুদক কে অবহিত করি। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে আমার সাথে দুদকের একাধিক কর্মকর্তা মানবাধিকার কর্মী এ্যাড. শেখ অলিউল ইসলামের (খালিশপুরস্থ বাসায়) অফিসে যাই। কথা-বার্তা একপর্যায়ে এ্যাড. শেখ অলিউল ইসলাম আমার কাছে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করেন। এসময়ে হাতেনাতে দুদক তাকে গ্রেপ্তার করে। এঘটনায় আমি বাদী হয়ে খালিশপুর থানায় মামলা করেছি।’

আপনার মতামত লিখুন :