মাওলানা সৈয়দ মু. ফজলুল করীম রহ. ও আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.-এর “জীবন ও কর্ম”-শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তাগন

আবদুল্লাহ আল হাদীআবদুল্লাহ আল হাদী
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:২১ PM, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

স্টাফ রিপোর্টার :  আদর্শ মানুষ গড়তে আধ্যাত্মিকতাকে তৃণমূলে
ছড়িয়ে দিয়েছিলেন মরহুম পীর সাহেব চরমোনাই

মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মাদ ফজলুল করীম রহ. “খানকার পীর ময়দানে বীর” এই উপাধিতে তিনি পরিচিত হয়ে উঠেছিলেন বাংলাদেশের জনসাধারণের মাঝে। গতানুগতিক নিয়মের খানকায় আরাম আয়েসে বসে তিনি শুধু ইসলামের দিকে মানুষকে দাওয়াত দেননি। ইসলাম, দেশ এবং মানুষের যেকোনো প্রয়োজনে তিনি রাজপথে গর্জে উঠেছিলেন। বিপ্লবী মানুষদের নেতৃত্ব দিয়েছেন আপোসহীন ভুমিকায় থেকে। আমরণ রাজনৈতিক অঙ্গনে বিচরণ করলেও লোভ, লালসা আর অপরাজনীতি স্পর্শ করতে পারেনি তাকে। তিনি ছিলেন, আজীবন সংগ্রামী একজন মানুষ গড়ার কারিগর।

আজ ২৫ সেপ্টেম্বর’২০ ইং শুক্রবার বেলা ২.৩০ মিনিট জাতীয় প্রেসক্লাব সংলগ্ন বিএমএ মিলনায়তনে ইসলামী যুব আন্দোলনের কেন্দ্রীয় সভাপতি কে এম আতিকুর রহমানের সভাপতিত্বে আয়োজিত, মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মাদ ফজলুল করীম রহ. ও আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.-এর “জীবন ও কর্ম”- শীর্ষক আলোচনা সভা ও দুয়া মাহফিলের বক্তারা উপর্যুক্ত কথাগুলো বলেন।

শুভেচ্ছা জ্ঞাপন বক্তব্যে ইসলামী অন্দোলন বাংলাদেশ-এর আমীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম (পীর সাহেব চরমোনাই) বলেন, দেশ, মানবতা ও ইসলামের জন্য সর্বোচ্চ ত্যাগ করাই মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মাদ ফজলুল করীম রহ. ও আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ.-এর জীবনার্দশ। তিনি আরো বলেন, হাটহাজারী মাদ্রাসার মহাপরিচালক আল্লামা শাহ আহমদ শফী রহ. নাস্তিক মুরতাদ ও শয়তানী শক্তির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নেয়াসহ ইসলামী শিক্ষা প্রসারে ভুমিকা রাখেন। তার অবর্তমানে ইসলামী জগতে যে শূন্যতা তৈরি হয়েছে তা সহজে পূরণ হবার নয়।

পীর সাহেব চরমোনাই তার বক্তব্যে সরকারের ব্যর্থতার সমালোচনা করে বলেন, করোনা সংকটের কারণে মানুষ আজ দিশাহারা ্এর মধ্যেও সরকার নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম সাধারণ মানুষের ক্রয় ক্ষমতার মধ্যে রাখতে পারে নাই এবং যারা দেশের অর্থনীতির চাকা সচল রেখেছে সেই প্রবাসীরা নানাবীধ সমস্যার মধ্যে আছে, তাদের সমস্যা সমাধানে সরকার কোন পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারে নাই।

পীর সাহেব সন্দিপী এর জামাতা মুফতি উমর ফারুক সন্দিপী বলেন, মরহুম পীর সাহেব একজন আপসহীন সংগ্রামী মানুষ ছিলেন, তিনি কখনই বাতিলের সাথে আপোস করেন নাই, তার রেখে যাওয়া মিশনগুলো আজ সমাজে আলো ছড়াচ্ছে।

শায়খুল হাদীস আল্লামা আজিজুল হক রহ. এর সাহেবজাদা ও জামিয়া রহমানিয়ার শায়খুল হাদীস, মাওলানা মামুনুল হক পীর সাহেব চরমোনাই এর সৃতিচারণ করে বলেন, তার আদর্শ আমার চোখে এখনো ভাসমান, তিনি যেই ভাবে শায়খুল হাদীস আল্লামা আজিজুল হক রহ. এর সাথে কাঁধেকাঁধ মিলিয়ে রাজপথে সংগ্রাম করেছেন, যারা তাদের আদর্শের অনুসারী রয়েছি আমরাও বাতিলের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ সংগ্রাম চালিয়ে যাবো।

আলোচনা সভায় মরহুম দুই বুযুর্গের রুহের মাগফিরাত কামনায় বিশেষ দোয়া করা হয়।

সেক্রেটারী জেনারেল, মাওলানা মুহাম্মাদ নেছার উদ্দিন এর পরিচালনায় “জীবন ও কর্ম”- শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর সিনিয়ার নায়বে আমির মুফতি সৈয়দ মুহাম্মদ ফয়জুল করিম (শায়েখে চরমোনাই), প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যক্ষ মাওলানা সৈয়দ মোসাদ্দেক বিল্লাহ আল-মাদানী, পীর সাহেব চরমোনাই রহ. এর খলিফা আল্লামা নুরুল হুদা ফয়েজী, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এর নায়েবে আমীর, হাফেজ মাওলানা আব্দুল আউয়াল, মহাসচিব, অধ্যক্ষ হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ, আল্লামা আহমদ শফী রহ. এর খলিফা, মাওলানা খালেদ সাইফুল্লাহ আইয়ুবী, সায়েন্স ল্যাবরেটরী মসজিদ এর খতিব, মাওলানা হাসান জামিল, দৈনিক ইনকিলাব এর সিনিয়র সহ-সম্পাদক, মাওলানা উবায়দুর রহমান খান নদভী প্রমূখ।

বার্তা প্রেরক
(মুহাম্মাদ ইলিয়াস হাসান)
কেন্দ্রীয় প্রচার সম্পাদক
ইসলামী যুব আন্দোলন

আপনার মতামত লিখুন :