শেরপুরের নালিতাবাড়িতে কবর থেকে লাশ উত্তোলন

বার্তাকক্ষবার্তাকক্ষ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৪৯ PM, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

শেরপুর জেলা প্রতিনিধিঃ

শেরপুর জেলার নালিতাবাড়ী উপজেলায় দাফনের ৬৪ দিন পর উসমান নামে এক ব্যাক্তির লাশ উত্তোলন করায় হয়েছে।
সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর), নালিতাবাড়ী উপজেলার রাজনগর ইউনিয়নের বড়ডুবি গ্রামের উসমান আলীর লাশ উত্তোলন করা হয়।
পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ১৬ জুলাই ২০২০ ইং তারিখে মৃত উসমান আলী তার বাড়ির পাশে গোয়াল ঘরে গরু দেখতে যান। ঐদিন আনুমানিক রাত ৯ টার দিকে মৃত ব্যাক্তির বড় ভাই মনির হোসেন গোয়াল ঘরের কাছে গেলে তার ভাইকে অজ্ঞান অবস্থায় মাটিতে পড়ে থাকতে দেখেন।
তারপর উসমান আলীকে শেরপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।
পরদিন ১৭ জুলাই বেলা ১১ টার দিকে উসমান আলীর দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়।
ঘটনার ১ মাস পর মৃতের ভাই অছিমুদ্দীন ধারনা করেন যে তার ভাইকে খুন করা হয়েছে। পূর্বের জমিজমা ও পারিবারিক শত্রুতার জের ধরে এমন ঘটনা ঘটেছে সন্দেহে মৃতের সন্দেহে শেরপুর কোর্টে মামলা দায়ের করে।
মৃতের চাচাতো ভাই মিস্টার আলী(৩০),রকিবের চাচা রকিব ওরফে ডিপজল(২০),মৃতের আরেক চাচাতো ভাই সিদ্দিক মিয়া(৩৫),,মৃতের দাদা সাইফুল(৪৫) কে আসামী করে মামলা দায়ের করা হয়।আদালতের আদেশে নালিতাবাড়ী থানায় মার্ডার মামলা রুজু হয়।
মামলার তদন্তকারী অফিসার নালিতাবাড়ী থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) জনাব জুবায়ের হোসেন জানান মামলাটির সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে বিজ্ঞ আদালতের আদেশ মোতাবেক একজন বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট ও পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে মৃতের লাশ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে।ময়না তদন্তের রিপোর্ট আসলে জানা যাবে ঠিক কি কারনে উসমানের মৃত্যু হয়েছিল।
এসময় ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেট মিজানুর রহমান,,সহকারী পুলিশ সুপার(নালিতাবাড়ী সার্কেল) জনাব জাহাঙ্গীর আলম সহ পুলিশ সদস্যরা,এছাড়াও স্থানীয় প্রায় শতাধিক জনতা উপস্থিত ছিল।

আপনার মতামত লিখুন :