দেওয়ানগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পেঁয়াজ বিক্রেতার ৩৩ হাজার টাকা জরিমানা

বার্তাকক্ষবার্তাকক্ষ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৫:৫০ AM, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২০

জামালপুর প্রতিনিধিঃ

জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ উপজেলার পৌর বাজারে বুধবার ১৬ সেপ্টেম্বর দুপুর থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে দুই পেঁয়াজ বিক্রেতাকে ৩৩ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। পৃথক দুইটি অভিযানে মেসার্স শরিফা ট্রেডার্সকে ত্রিশ হাজার টাকা এবং আব্দুল মান্নান নামে এক পেঁয়াজ ব্যবসায়ীকে তিন হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। দুপুর ২ ঘটিকার সময় প্রথম অভিযানে মেসার্স শরিফা ট্রেডার্স এর দোকানে এগিয়ে তাদেরকে পেঁয়াজের মূল্য জিজ্ঞাসা করেন সহকারি কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান । তারা সে সময় দেশি পেঁয়াজ ৬০ টাকা এবং ভারতীয় পেঁয়াজ ৪৮ টাকা মূল্যে বিক্রি করছেন বলে তাকে জানান।

এর পর আরও বেশ কয়েকটি দোকানে অভিযান চালিয়ে একটিতে জরিমানা করার পরে অভিযান শেষ করে চলে যান । তার কিছুক্ষণ পরেই এসিল্যান্ড গোপন সোর্স পাঠিয়ে পেঁয়াজের মূল্য তালিকা যাচাই করেন ।

এসিল্যান্ডের পাঠানোর সেই গোপন সোর্স শরিফা ট্রেডার্স এর কাছে পেঁয়াজ ক্রয় করতে গেলে তার কাছে ৯০টাকা কেজি দেশি পেঁয়াজের মূল্য দাবি করেন এবং ক্রয় রশিদ চাইলে শরিফা ট্রেডার্সের বিক্রেতা সেটা দিতে অস্বীকার করেন তার কাছে পেঁয়াজ বিক্রি করবেন না বলে তাকে ফিরিয়ে দেন । এই সংবাদ পেয়ে পুনরায় এক অভিযানে নামেন সহকারী কমিশনার ভূমি আসাদুজ্জামান ।

তিনি পুনরায় সেই শরিফা ট্রেডার্সে এসে দুই রকমের দামের কারণ জানতে চান এবং মূল্য তালিকায় প্রদর্শিত দামে পিয়াজ কেন বিক্রি করা হচ্ছে না তা জানতে চান। তারা কোন সদুত্তর দিতে না পারায় যথাযথ সাক্ষী এবং প্রত্যক্ষদর্শীদের উপস্থিতিতে সহকারী কমিশনার ভূমি আসাদুজ্জামান ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৪০ ধারা মোতাবেক ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেন ।

অপর ব্যবসায়ী মোঃ আব্দুল মান্নানকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ এর ৩৮ ধারা মোতাবেক তিন হাজার টাকা জরিমানা করা হয় ।

দেওয়ানগঞ্জ সহকারী কমিশনার ভূমি এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুজ্জামান সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন পিঁয়াজের বাজার কোনভাবেই অস্থিতিশীল হতে দেওয়া হবে না যে কোনো মূল্যে বাজার নিয়ন্ত্রণে রাখা হবে এর জন্য যা যা করা দরকার তাই করা হবে এবং অভিযান অব্যাহত থাকবে ।

আপনার মতামত লিখুন :