কলসি ওয়ালী – মো:নাহিদ হাসান

বার্তাকক্ষবার্তাকক্ষ
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ০৬:০৫ AM, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

দুর থেকে দেখেছিলাম

বলা হয়নি সেদিন কিছু
কোন ঘরের রুপসী সে
দেখতে গিয়েছিলাম পিছু।

জানা হয়নি তার নাম টা
বলা হয়নি কোন কথা
চোখের ভাষায় তবুও
হয়েছিল মালা গাঁথা।

একে একে কত না দিন
গিয়েছি মানাস পাড়ে
দুর থেকে চেয়ে চেয়ে
দেখতাম শুধু তারে।

হাতে তুলে নিতাম বর্শি
যেতাম দেখার নেশায়
মন বলতো আসবেই
থাকতাম শুধু আশায়।

অবশেষে একদিন
আসিলো সে কাছে
বসলাম পাশাপাশি
এক বটবৃক্ষের নিচে।
জানতে চায় মোর কাছে
কেন প্রতিদিন আসি
কি মাছ ধরি নদীতে
সকাল দুপুর নিশি?

সাহস রেখে বুকে
মানাস নদীর তীরে
বললাম সব মনের কথা
চেয়ে তার নয়ন নীড়ে।
একটু হেসে কাছে এসে
বললো আমায় পাগল
জানতাম তো মাছ টা আমিই
আজ পেলাম তার ফল।

আমিও একটু সাহস রেখে
জানতে চাইলাম নাম তার
বললো সে মোহনা
এই পল্লীতেই মোর ঘর।
এমনি ভাবে প্রত্যক বেলা
আসতাম মানাস তীরে
দেখতাম তার মধুর হাসি
তবেই যেতাম ফিরে।

আজও আছে মানাস নদী
আছে তার জল এখনো
শুধু নেই ঐ কলসি ওয়ালী
নেই তার কোনই চিহ্ন।
নদীর তীরে আসি প্রায়
চেয়ে থাকি ঘাটের পানে
ভাবি শুধু আসবে হয়তো
মোর ভালোবাসার টানে।

আপনার মতামত লিখুন :